দখিনা দর্পণ শ্যামনগরে ৩০০ কোটি টাকার অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন – দখিনা দর্পণ
Image

মঙ্গলবার  •  ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ • ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

Add 1

শ্যামনগরে ৩০০ কোটি টাকার অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন

প্রকাশিতঃ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন । পঠিত হয়েছে ১৯০ বার।

শ্যামনগরে  ৩০০ কোটি টাকার অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগরে রেডিয়েন্ট হ্যাচারী এন্ড নার্সারীর মালিক সফিকুর রহমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে প্রতারণা করে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা, জমির হারি ও অন্যান্য বকেয়াসহ প্রায় অর্ধ-কোটি টাকার অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার নওয়াগ্রাম এর ছিদ্দিক মিয়া চৌধুরীর পুত্র সফিকুর রহমান চৌধুরীর প্রতারণা ও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিনদিন প্রকাশ হচ্ছে।

গত ২২ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) বিকাল ৫টার দিকে শ্যামনগর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা তুষার কান্তি মজুমদার রেডিয়েন্ট ¯্রীম্প কালচার হ্যাচারী এন্ড নার্সারীতে এবং পরবর্তীতে আটুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে তদন্ত সম্পন্ন করেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আটুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু সালেহ বাবু, শ্যামনগর উপজেলা প্রেস ক্লাবের নব-নির্বাচিত সহ-সভাপতি এসএম মোস্তফা কামালসহ ইউপি সদস্য, শিক্ষক, চাকুরীজীবি, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও ভুক্তভোগী গ্রাহকবৃন্দ প্রমুখ। তদন্ত স্থলে ভুক্তভোগী গ্রাহকবৃন্দ জানান, রেডিয়েন্ট হ্যাচারী এন্ড নার্সারীর মালিক আলহাজ্ব সফিকুর রহমান চৌধুরী তাদের কাছ থেকে বিনিয়োগের নামে প্রতারণা করে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে কুমিল্লায় ও কক্সবাজারে রেডিয়েন্ট নামীয় ফিস এ্যাকুরিয়াম, জমি ক্রয়, আলীশান বাড়ি, আলীশান ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। তদন্তে আরও জানানো হয়- আলহাজ্ব সফিকুর রহমান চৌধুরী ছদ্রবেশী ভদ্রলোক সেজে ধর্মীয় অনুভুতি কাজে লাগিয়ে তঞ্চকতা ও প্রতারনা করে দক্ষ টিম তৈরী করে প্রায় শ্যামনগর, কয়রা, আশাশুনি ও কালিগঞ্জ উপজেলার প্রায় ৬০০ গ্রাহকদের কাছ থেকে আনুমানিক ৩০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়। আটুলিয়া, নওয়াবেঁকী, বিড়ালক্ষী, ছোট কুপট, বড় কুপট, হাওয়ালভাঙ্গী এলাকার মানুষ বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

তাছাড়া জমির হারী ও অন্যান্য বকেয়াসহ প্রায় অর্ধ-কোটি টাকা ভুক্তভোগীরা পাবেন বলে দাবী করেন। সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা তুষার কান্তি মজুমদার জানান, প্রায় ৬০০ গ্রাহকদের কাছ থেকে আনুমানিক ৩০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানো হবে। আটুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু সালেহ বাবু জানান, সফিক সাহেবের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী জনগনের অভিযোগের শেষ নেই, প্রতিনিয়ত তার প্রতারণা নিয়ে জনগণ অভিযোগ তুলে তাদের জমাকৃত কোটি কোটি টাকা ফেরত পেতে ডকুমেন্ট নিয়ে তার পরিষদে দারস্ত হচ্ছেন। সফিকুর রহমান চৌধুরীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে সাংবাদিকের পরিচয় পেয়েই সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ায় এ বিষয় নিয়ে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এ জাতীয় আরো সংবাদ

সুন্দরবন থেকে মৃত বাঘিনী উদ্ধারের ঘটনায় নানা গুঞ্জন

প্রকাশিতঃ ৯ নভেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ৪:০৫ অপরাহ্ন

সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে হরিণের মাংসসহ আটক ১

প্রকাশিতঃ ৭ নভেম্বর ২০২১, রবিবার, ৪:২৩ অপরাহ্ন

নৌকায় সন্তান জন্ম দিলেন গৃহহারা এক মা

প্রকাশিতঃ ৪ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:০৪ অপরাহ্ন

দস্যুমুক্ত সুন্দরবন দিবস হিসাবে পালন

প্রকাশিতঃ ১ নভেম্বর ২০২১, সোমবার, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

সুন্দরবনে আটক ১৩ জেলের ৪ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিতঃ ৩০ অক্টোবর ২০২১, শনিবার, ১১:৩২ অপরাহ্ন
শ্যামনগরে বৃদ্ধা শ্বাশুড়িকে মারপিটের ঘটনায় দুই পুত্রবধূ ও ছেলে আটক

শ্যামনগরে বৃদ্ধা শ্বাশুড়িকে মারপিটের ঘটনায় দুই পুত্রবধূ ও ছেলে...

প্রকাশিতঃ ৭ ডিসেম্বর ২০২০, সোমবার, ৮:৩১ পূর্বাহ্ন

শ্যামনগরে কৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আব্দুর রহিম গুলিবিদ্ধ

প্রকাশিতঃ ১৫ নভেম্বর ২০২০, রবিবার, ৮:৪৮ অপরাহ্ন