দখিনা দর্পণ সাতক্ষীরায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা – দখিনা দর্পণ
Image

রবিবার  •  ১০ বৈশাখ ১৪২৮ • ২৩ জানুয়ারী ২০২২

Add 1

সাতক্ষীরায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা

প্রকাশিতঃ ১৩ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার, ১০:১৬ অপরাহ্ন । পঠিত হয়েছে ৮৩ বার।

সাতক্ষীরায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা

সাতক্ষীরা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে মাদক ব্যবসায়ি দেবহাটা উপজেলার বসন্তপুর গ্রামের বাবলু সরদারের মৃত্যুর ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার সদর থানার সহকারি উপপুলিশ পরিদর্শক সোহেল রানা বাদি হয়ে এ অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন।
এদিকে পুলিশ হেফাজতে মৃত বাবলু সরদারের লাশ সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্ত শেষে রবিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুরিশের পরিদর্শক ইয়াছিন আলম চৌধুরী জানান, শনিবার সকালে দেবহাটা উপজেলার বসন্তপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে ৫০ বোতল ফেনসিডিল ও ৩৫ হাজার টাকাসহ গ্রেপ্তার হওয়া বাবলু সরদার রবিবার ভোরের দিকে নিজের কোমরে ব্যবহৃত নাইলনের মোটা সুতা দিয়ে লকআপের গেটের গ্রীলের সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। সন্ধ্যায় ময়না তদন্ত শেষে বাবলুর লাশ তার স্বজনদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। কর্তব্যে অবহেলার দায়ে গোয়েন্দা পুলিশের এক সহকারি উপপরিদর্শক ও এক কনস্টেবলকে বরখাস্ত করা হয়।
বাবলু সরদারের মেয়ে দেবহাটা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় ফল প্রত্যাশী সুলতানা মুন্নি জানান, তার বাবা জুড়ন সরদার, চাচা আব্দুল মজিদ ও চাচা বাহাদুর সরদার মুক্তিযোদ্ধা। শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে তাদের গ্রামের পুটে সরদারের শ্যালিকা সদর উপজেলার চৌবাড়িয়া গ্রামের বোরকা পরা নারী মুন্নি খাতুন আকস্মিকভাবে তাদের বাড়িতে ঢুকে তার বাবার ঘরে যেয়ে ফেন্সিডিল রেখে নিকটে থাকা গোয়েন্দা পুলিশকে ইশারা করে। সঙ্গে সঙ্গে গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক মনির ও উপপরিদর্শক এনামুলসহ দুই কনস্টেবল তার বাবাকে ওই ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার দেখান। এসময় ঘরে তল­াশি চালিয়ে ৩৫ হাজার টাকাও নিয়ে যায় ওই পুলিশ সদস্যরা। তার বাবাকে আটকের পর হাতে হ্যাণ্ডকাপ লাগিয়ে মারপিট করা হয়। প্রতিবাদ করায় ছোট ভাইকেও মারিপট করা হয়। তার বাবা কোমরে কখনও সুতালি(রশি) ব্যবহার করতেন না করলেও হত্যার ঘটনা ভিন্নখাতে
প্রবাহিত করতে লকআপের গেটের গ্রীলের সাথে নিজের কোমরে থাকা সুতালিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশ প্রচার দেয়।
মৃত বাবলু সরদারের ভাই ফজর আলী সরদার জানান, তাই ভাইকে পুলিশ নির্যাতন করে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে তারা সোমবার সন্ধ্যায় স্বজন ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে আলোচনা করে হত্যা মামলা করবেন কিনা তা নিয়ে সিদ্বান্ত নেবেন।
সাতক্ষীরা সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক বাবুল আক্তার জানান, পুলিশ হেফাজতে বাবলু সরদারের মৃত্যুর ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের সহকারি উপপরিদর্শক সোহেল রানা বাদি হয়ে রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ৯৫ নং অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছেন।#

এ জাতীয় আরো সংবাদ

কলারোয়ায় ২৭ কেজি রুপার গহনাসহ দু’জন আটক

প্রকাশিতঃ ২২ জানুয়ারী ২০২২, শনিবার, ৪:২৬ অপরাহ্ন

মুন্সিগঞ্জ পর্যন্ত রেললাইন হবে: এনআই খান

প্রকাশিতঃ ২২ জানুয়ারী ২০২২, শনিবার, ৪:২৬ অপরাহ্ন

শ্যামনগরে শালিসি বৈঠক চলাকালে দুইপক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত আহত...

প্রকাশিতঃ ২২ জানুয়ারী ২০২২, শনিবার, ৪:১৮ অপরাহ্ন

সাতক্ষীরায় ঈগল পরিবহনের পিছনে পিষ্ট হয়ে হেলপারের মৃত্যু

প্রকাশিতঃ ২০ জানুয়ারী ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:২২ অপরাহ্ন

সড়কে স্পিড ব্রেকার না থাকায় ঝুঁকিতে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিতঃ ১৯ জানুয়ারী ২০২২, বুধবার, ১১:১৩ অপরাহ্ন

ইটভাটার খাদ্য হওয়ায় বিলুপ্তির পথে খেজুর গাছ

প্রকাশিতঃ ১৭ জানুয়ারী ২০২২, সোমবার, ১১:৩৩ অপরাহ্ন

উপকূলীয় কৃষি জমিতে লবণাক্ততা বৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব...

প্রকাশিতঃ ১৬ জানুয়ারী ২০২২, রবিবার, ১১:৫৫ অপরাহ্ন